সোনিয়া গান্ধীর রেকর্ড ভেঙে উত্তর প্রদেশে বড় জয়ের পথে রাহুল গান্ধী

তাহানুল মারুফ
জুন ৪, ২০২৪

Share Now

বরাবরই কংগ্রেসের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত ভারতের উত্তর প্রদেশের রায়বেরেলি।  চলমান নির্বাচনেও দেখা গেছে সেই চিত্র।  কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী এই আসন থেকে বিপুল সংখ্যক ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে আছেন তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপির দীনেশ প্রতাপ সিং থেকে। 

দেশটির নির্বাচন কমিশনের দেওয়া দুপুর ২টা ১৫ মিনিটের তথ্যানুয়ায়ী ২.৬২ লক্ষ্যেরও বেশি ভোটে এগিয়ে আছেন রাহুল গান্ধী।  যা সবশেষ ২০১৯ নির্বাচনে এই আসন থেকে তার মা সোনিয়া গান্ধীর চেয়েও বেশি ভোটের ব্যবধান।

২০০৪ সাল থেকে এই আসনটি ধরে রেখেছিলেন সোনিয়া গান্ধী।  ২০১৯ সালের নির্বাচনে প্রতাপ সিংয়ের বিপক্ষে ১.৫৭ লাখ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছিলেন তিনি।  এবার অবশ্য এই আসনে লড়ছেন না সোনিয়া।  তিনি লোকসভা নির্বাচন থেকে বেরিয়ে রাজ্যসভায় চলে যাওয়ায় তার জায়গায় কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে ভোটের লড়াইয়ে নামেন রাহুল গান্ধী।  

গান্ধী ২০০৪ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত আমেথি লোকসভা আসনে প্রতিনিধিত্ব করেছেন।  যদিও গত নির্বাচনে তিনি বিজেপির স্মৃতি ইরানির কাছে আমেথিতে হেরে যান, তবে কেরালায় দ্বিতীয় আসনে জয়ী হয়ে এমপি মর্যাদা বজায় রাখেন।

রাহুল গান্ধী এবারও দুটি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন- রায়বেরেলি (উত্তরপ্রদেশ) এবং ওয়ানাদ (কেরেলা)।  আর এই দুটি আসনেই এগিয়ে রয়েছেন তিনি।  ওয়েনাদে, তিনি তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সিপিএমের অ্যানি রাজার থেকে ৩ লাখ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন।  আর এদিকে আমেথিতে কংগ্রেস প্রার্থী কিশোরী লালকে ৯০ হাজারের বেশি ভোটে পিছনে ফেলে বিজিপির স্মৃতি ইরানির কাছ থেকে আমেঠি আসনটি ফিরে পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, বিজেপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় গণতান্ত্রিক জোট (এনডিএ) ২৯১টি আসনে এগিয়ে রয়েছে। অন্যদিকে বিরোধী ভারত ব্লকের আসন সংখ্যা ২৩৩টি।